SSC Physics Practical 2024 (এসএসসি পদার্থবিজ্ঞান প্রাকটিকাল ২০২৪)

SSC Physics Practical 2024 খুজঁতেছ? আজকে আমি শেয়ার করবো প্রাকটিকাল পরীক্ষা নিয়মাবলী ও পরীক্ষণগুলো।

সূচনাঃ

পদার্থবিজ্ঞানের পাঠক্রম দুটি অংশে বিভক্ত— তাত্ত্বিক ও ব্যবহারিক। পদার্থবিজ্ঞানের ব্যবহারিক ক্লাস, তাত্ত্বিক বিষয়সমূহ হাতে-কলমে পরীক্ষা করার সাথে সাথে আমাদের শিক্ষা দেয়, কীভাবে দক্ষতার সাথে কাজ সম্পন্ন করতে হয়, যা ব্যবহারিক জীবনে প্রতি পদক্ষেপে আমাদের প্রয়োজন হতে পারে। দক্ষতার সাথে কোনো কাজ সম্পন্ন করতে হলে তার জন্য পূর্বপ্রস্তুতির প্রয়োজন।

ব্যবহারিক কাজের উদ্দেশ্যঃ

ল্যাবরেটরি বা গবেষণাগার হলো শিক্ষার্থীদের ওয়ার্কশপ বা কর্মশালা। বিজ্ঞানের বিভিন্ন নীতির তাৎপর্য ও প্রয়োগ প্রদর্শনের জন্য ডিজাইনকৃত বিভিন্ন যন্ত্রপাতি ব্যবহারের মাধ্যমে শিক্ষার্থীরা এখানে ভৌত (এক্ষেত্রে পদার্থবিজ্ঞানের) নীতিসমূহ ও পরীক্ষণ পদ্ধতি সম্পর্কে প্রত্যক্ষ জ্ঞান ও অভিজ্ঞতা লাভ করে। ব্যবহারিক কাজের সুনির্দিষ্ট উদ্দেশ্যগুলো হলো-

১. পর্যবেক্ষণ ও উপাত্ত রেকর্ড করার বৈজ্ঞানিক পদ্ধতি সম্পর্কে প্রশিক্ষণ লাভ।

২. যন্ত্রপাতি ব্যবহার ও সমন্বয় করার কৌশল জানা ।

৩. পরীক্ষণের সীমাবদ্ধতা ও সামর্থ্য সম্পর্কে অনুধাবন।

৪. লেখচিত্রের সাহায্যে কোনো বৈজ্ঞানিক জ্ঞান ও নীতিকে উপস্থাপনের অভিজ্ঞতা অর্জন।

৫. উপাত্ত সংগ্রহ এবং নির্ভরযোগ্য উত্তর কর্ষণ বা যথার্থ সম্পর্ক নির্ণয়ের সামর্থ্য সম্পর্কে আত্মবিশ্বাসের বিকাশ সাধন।

যখন কোনো শিক্ষার্থী পরীক্ষালব্ধ উপাত্ত থেকে ফল হিসাব করতে সক্ষম হয় এবং সেই ফল যদি জ্ঞাত বা আদর্শ ফলের সাথে মিলে যায় তাহলে পরীক্ষণ সম্পাদন সম্পর্কে শিক্ষার্থীর আত্মবিশ্বাস বৃদ্ধি পায়, ফলে ভবিষ্যতে যেকোনো পরীক্ষণ সম্পাদন করার সামর্থ্য সম্পর্কে তার বিশ্বাস জন্মে।

ব্যবহারিক ক্লাসের জন্য প্রস্তুতিঃ

SSC Physics Practical 2024 এর ক্লাসের জন্য সপ্তাহে যে সময় বরাদ্দ থাকে তা যাতে পুরোপুরি কাজে লাগানো যায় সেজন্য ব্যবহারিক ক্লাসে যাওয়ার আগে প্রস্তুত হয়ে যেতে হয়। ক্লাসে কোন পরীক্ষাটি করতে হবে তা অন্তত এক সপ্তাহ আগে জেনে নিতে হয়। এই এক সপ্তাহ সময়ের মধ্যে পড়াশুনা করে পরীক্ষাটি সম্পর্কে ধারণা যতটা সম্ভব স্পষ্ট করে নেওয়া আবশ্যক। এজন্যে নিচের বিষয়গুলো জেনে নেওয়া দরকার-

১. পরীক্ষার তত্ত্ব,

2. পরীক্ষার জন্যে প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতির বর্ণনা,

৩. পরীক্ষাটি কীভাবে সম্পন্ন করতে হবে অর্থাৎ কাজের ধারা এবং

৪. ছক।

এসবই হচ্ছে বাড়ির প্রস্তুতি।

SSC Physics Practical 2024 এর ব্যবহারিক ক্লাসে অর্থাৎ পরীক্ষাগারে যাওয়ার সময় সাথে নিয়ে যেতে হবে-

১.পদার্থবিজ্ঞান বই,

২. ব্যবহারিক খাতা দুটি— একটি খসড়া খাতা বা রাফ খাতা অপরটি আদর্শ খাতা বা ফেয়ার খাতা।

৩. স্কেল, পেনসিল, রবার, জ্যামিতি বক্স (যদি লাগে), ক্যালকুলেটর ও ছক কাগজ।

Also Read,

SSC Physics Practical 2024 এর ব্যবহারিক খাতাঃ

১. রাফ বা খসড়া খাতা (Rough Note Book)

SSC Physics Practical 2024 এর ক্লাসে পরীক্ষাটি করার সময় যেসব পাঠ পাওয়া যায়, পরীক্ষাটি সম্পন্ন করতে যেসব অসুবিধার সম্মুখীন হতে হয় সেগুলো লিখে রাখতে হয়। প্রাপ্ত পাঠ থেকে হিসাব করে ফলাফল নির্ণয় এ খাতাতে করতে হয়। পরীক্ষা থেকে শিক্ষককে দেখিয়ে এ খাতায় তাঁর স্বাক্ষর নিলে ভালো হয়। একটি রাফ ব্যবহারিক খাতা একজন ছাত্রের মানসিকতা ও দক্ষতার উত্তম প্রতিফলক। রাফ খাতায় আগে থেকে কাজের ধারা লিখে এবং ছক এঁকে রাখলে ক্লাসে পরীক্ষাটি করতে অনেক সুবিধা হয়।

২. আদর্শ বা ফেয়ার খাতা (Fair Notebook)

SSC Physics Practical 2024 এর ক্লাসে যে পরীক্ষাটি করা শেষ হয়ে যাবে, আদর্শ বা ফেয়ার খাতায় সেটি লিখে ফেলতে হবে। মনে রাখতে হবে, পরীক্ষার সময় এ ফেয়ার খাতা জমা দিতে হবে এবং সেজন্য আলাদাভাবে নম্বর বরাদ্দ আছে। ফেয়ার খাতায় পরিষ্কার পরিচ্ছন্নতা ও ধারাবাহিকতা বজায় রেখে গোছালোভাবে পরীক্ষার তত্ত্ব, যন্ত্রপাতি, কাজের ধারা, ফলাফল, সতর্কতা, সুবিধা-অসুবিধা ইত্যাদি লিখতে হবে।

পরীক্ষাগারে যেসব নিয়ম পালন করতে হবেঃ

১.পরীক্ষার জন্য প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি হাতে নিয়ে পরীক্ষার জন্য নির্ধারিত জায়গায় যেতে হবে। পরীক্ষাগারের মধ্যে অকারণে ঘুরে বেড়ানো নিতান্তই তাবাঞ্ছনীয়। মনে রাখতে হবে ব্যবহারিক ক্লাসে শৃঙ্খলা ও শিষ্টাচার বজায় রাখা সুষ্ঠুভাবে পরীক্ষা সম্পন্ন হওয়ার পূর্বশর্ত।

২. পরীক্ষার জন্য প্রয়োজনীয় যন্ত্রপাতি অত্যন্ত সতর্কতার সাথে ব্যবহার করতে হবে। দেখতে খুব সাধারণ হলেও পদার্থবিদ্যার সবগুলো যন্ত্রপাতি অত্যন্ত মূল্যবান। তাই যন্ত্রপাতি সতর্কতার সাথে ব্যবহার করতে হবে। কারণ কোনো যন্ত্র হারিয়ে গেলে বা নষ্ট হলে সে দায়িত্ব তোমার। কোনো যন্ত্রের ব্যবহার না বুঝতে পারলে শিক্ষকের কাছ থেকে বুঝে নিতে হবে।

৩. পরীক্ষা সম্পর্কিত কোনো ধারণা অস্পষ্ট থাকলে তা ব্যবহারিক ক্লাসের শিক্ষকের কাছ থেকে বুঝে নিতে হবে।

৪. এরপর কাজের ধারায় বর্ণিত নিয়মানুযায়ী পরীক্ষাটি সম্পন্ন করতে হবে। পরীক্ষালব্ধ উপাত্তসমূহ রাফ খাতায় লিখে প্রয়োজনীয় হিসাব করে ফলাফল নির্ণয় করতে হবে। অনেক সময় কয়েক জনের গ্রুপ করে পরীক্ষা করানো হয়ে থাকে। সেক্ষেত্রে অন্যের নেওয়া পাঠ নিজের খাতায় না লিখে নিজে নিজে পাঠ নিয়ে তা খাতায় লিপিবদ্ধ করবে।

৬. যন্ত্রের পাঠ নেওয়ার সময় অত্যন্ত যত্নবান হতে হবে। মনে রাখতে হবে পাঠের সামান্য হেরফেরে ফলাফলে বড় ধরনের হেরফের হতে পারে।

৮. রাফ খাতা শিক্ষককে দেখিয়ে স্বাক্ষর নিতে হবে।

৯. যে পরীক্ষা সম্পূর্ণ হয়ে যাবে সেটি ফেয়ার খাতায় ব্যবহারিক খাতা লিখনের পদ্ধতি অনুযায়ী লিখে পরবর্তী ক্লাসে শিক্ষককে দেখিয়ে তাঁর স্বাক্ষর নিবে। শুধু যে পরীক্ষাটি সম্পূর্ণ হয়েছে ফেয়ার খাতায় সেটিই লিখবে। অন্যের খাতা থেকে পাঠ কোনোক্রমেই ফেয়ার খাতায় লিখবে না।

Leave a Comment