মনোবিজ্ঞান কি? মনোবিজ্ঞানের শাখাসমূহ কি কি?

অথবা, মনোবিজ্ঞান কাকে বলে? মনোবিজ্ঞানের শাখা-প্রশাখাগুলো লিখ।

উত্তর : 

ভূমিকা : বিভিন্ন মনোবিজ্ঞানীরা মানব জীবনে বিভিন্ন প্রকার গবেষণা করে থাকেন। বিভিন্ন প্রকার গবেষণা মতামত থেকে সৃষ্টি হয় বিভিন্ন প্রকার ক্ষেত্র বা শাখা। বিভিন্ন প্রকার শাখা বিভিন্ন দিক নিয়ে আলোচনা প্রদান করে থাকে। বিভিন্ন শাখার মত পরীক্ষণ মনোবিজ্ঞান হচ্ছে অন্যতম একটি শাখা। যে শাখার মাধ্যমে বিভিন্ন পরীক্ষণীয় বিজ্ঞানসম্মত তথ্য পাওয়া যায়। এর মাধ্যমে বিভিন্ন বিষয় সম্পর্কে ভালো তথ্য পাওয়া যায়।

মনোবিজ্ঞানের সংজ্ঞা : মনোবিজ্ঞানের ইংরেজি প্রতিশব্দ ‘Psychology’ যা দু’টি গ্রিক শব্দ ‘Psyche’ যার অর্থ মন বা আত্মা এবং logos অর্থ বিজ্ঞান থেকে উৎপত্তি হয়েছে। সুতরাং শাব্দিক অর্থে মনোবিজ্ঞানকে মন বা আত্মা সম্বন্ধনীয় বিজ্ঞান বলা হয়। বিংশ শতাব্দীর শুরুর দিকে একে চেতনার বিজ্ঞান ও আচরণের বিজ্ঞান হিসেবে অভিহিত করা হয়। তবে আধুনিক মনোবিজ্ঞানীগণ এর সাথে মানসিক প্রক্রিয়াকেও যুক্ত করেছেন ।

মর্গান এবং অন্যান্যরা বলেন, “মনোবিজ্ঞান হলো মানুষ ও প্রাণীর আচরণ সম্বন্ধনীয় বিজ্ঞান এবং এটি মানুষের সমস্যায় এ জ্ঞানের প্রয়োগকে অন্তর্ভুক্ত করে থাকে।”

জন. সি. রাচ বলেন, “মনোবিজ্ঞানকে আচরণ ও মানসিক কার্যকলাপের বিজ্ঞান হিসেবে সংজ্ঞায়িত করা যায়।”

সুতরাং মনোবিজ্ঞান হলো মানুষ ও প্রাণীর আচরণ সম্পর্কিত বিজ্ঞান।

মনোবিজ্ঞানের শাখাসমূহ : সময়ের বিবর্তনের সাথে সাথে এবং বিজ্ঞানের অগ্রগতির সাথে সাথে মনোবিজ্ঞানের বিভিন্ন দিক উন্মোচিত হয়েছে। বিভিন্ন ক্ষেত্র প্রসারিত হয়েছে। মনোবিজ্ঞানের প্রধান শাখাগুলো হলো :

১. সাধারণ মনোবিজ্ঞান; 

২. পরীক্ষণ মনোবিজ্ঞান; 

৩. চিকিৎসা মনোবিজ্ঞান; 

৪. শিক্ষা মনোবিজ্ঞান; 

৫. শিল্প মনোবিজ্ঞান; 

৬. বিকাশ মনোবিজ্ঞান; 

৭. শিশু মনোবিজ্ঞান; 

৮. সমাজ মনোবিজ্ঞান; 

৯. শারীরবৃত্তীয় মনোবিজ্ঞান; 

১০. উপদেশনা ও নির্দেশনা মনোবিজ্ঞান; 

১১. প্রকৌশল মনোবিজ্ঞান এবং 

১২. অস্বভাবী মনোবিজ্ঞান।

Leave a Comment